ই-পেপার

হারতায় বহিরাগতদের অস্ত্রের মহড়া!

নিজস্ব প্রতিবেদক | আপডেট: November 22, 2021

বরিশালের উজিরপুরে তৃতীয় ধাপে হারতা ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচনে ভাড়াটিয়া বহিরাগত সন্ত্রাসীদের নিয়ে অস্ত্রের মহড়া দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থী প্রিন্স বিশ্বাসের বিরুদ্ধে। গত রোববার বিকালে আওয়ামীলীগের মনোনিত চেয়ারম্যান প্রার্থী অমল মল্লিক উপজেলা নির্বাচন অফিসসহ বিভিন্ন দপ্তরে অভিযোগ দায়ের করেছে।

স্থানীয় ও অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, ২৮ নভেম্বর নির্বাচন হবে ওই ইউনিয়নে। নির্বাচনের দিন যতোই কাছাকাছি চলে আসছে ততোই ভোটার ও প্রার্থীদের মধ্যে উৎকন্ঠা সৃষ্টি হচ্ছে। হারতা ইউনিয়ন সংখ্যা লগু অদ্যসতি এলাকা।

এখানে আওয়ামীলীগের ভোট ব্যাংক হিসাবে পরিচিত হলেও সেই স্থানে নৌকার ভোটারদের বাড়ীতে বাড়ীতে গিয়ে ভোট কেন্দ্রে গিয়ে নৌকায় ভোট দিলে প্রান নাশের হুমকি দিচ্ছে স্বতন্ত্র প্রার্থী প্রিন্স বিশ্বাসের শ্যালক পার্শ্ববতি জল্লা ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান উর্মিলা বাড়ৈর ছেলে অচিন্ত্য বাড়ৈর বিরুদ্ধে।

এছাড়াও অচিন্ত্য বাড়ৈ এবং স্বতন্ত্র প্রার্থী প্রিন্স হারতা ইউনিয়নের প্রতিটি গ্রামে বহিরাগত ভাড়াটিয়া সন্ত্রাসীদের নিয়ে অস্ত্রের মহড়া দিচ্ছে বলে জানান নাম প্রকাশ্যে অনিচ্ছুক ওই ইউনিয়নের স্থানীয় একাধিক ব্যক্তি।

গত শনিবার রাতে নাথারকান্দি গ্রামের ৫ নং কেন্দ্রের নৌকার নির্বাচন পরিচালনা কমিটির আহব্বায়ক নির্মল চন্দ্র রায়কে স্বতন্ত্র প্রার্থী প্রিন্স বিশ্বাস নিজে বাড়ী থেকে ডেকে নিয়ে প্রাণনাশের হুমকি দিয়েছে বলে অভিযোগ করেন তিনি।

এ নিয়ে সংখ্যালঘু অদ্যসিত এলাকায় ভোটার দের মাঝে আতংক বিরাজ করায় ডিআইজি, পুলিশ সুপারের কার্যালয়ে, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কার্যালয়ে এবং নির্বাচন কমিশনার অফিসে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছে আওয়ামীলীগের চেয়ারম্যান প্রার্থী অমল মল্লিক।

স্বতন্ত্র আনারস প্রতীকের প্রার্থী প্রিন্স বিশ্বাস বলেন, আমার সাথে কোন বহিরাগত থাকে না। তবে আমার শ্যালক থাকেন। এছাড়া কোন ভোটারকে আমি হুমকি দেয়নি। আমার বিরুদ্ধে মিথ্যা নাটক সাজিয়ে অভিযোগ দায়ের করেছে। যাকে হুমকি দিয়েছি বলে অভিযোগে বলা হয়েছে তিনি আমার মামা হন। আমি উল্টো তাদের বিরুদ্ধে অভিযোগ দিতে পারি, কিন্তু দেয় নি।

উপজেলা রির্টানিং ও নির্বাচন কর্মকর্তা মুহাম্মদ আব্দুর রশিদ সেখ জানান, অভিযোগ পেয়েছি। তদন্ত সাপেক্ষে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে। এছাড়া কোন প্রার্থী বহিরাগত সন্ত্রাসীদের নিয়ে ভোটের মাঠে প্রভাব বিস্তার করবে তাদের কাউকে ছাড় দেয়া হবে না। ইতিমধ্যে নির্বাচন সুষ্ঠভাবে সম্পন্ন করার জন্য নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট রয়েছে।

  • ফেইসবুক শেয়ার করুন