ই-পেপার

হামলার প্রতিবাদে চেয়ারম্যানের সংবাদ সম্মেলন

নিজস্ব প্রতিনিধিঃ | আপডেট: November 16, 2021

পটুয়াখালীর বাউফলে জীবনের নিরাপত্তা ও হামলাকারীদের বিচার  চেয়ে সংবাদ সম্মেলন করেছেন উপজেলা আওয়ামীলীগ সাংগঠনিক সম্পাদক ও কনকদিয়া ইউপি চেয়ারম্যান মো. শাহিন হাওলাদার
মঙ্গলবার দুপুর দেড়টার দিকে উপজেলা আওয়ামীলীগ কার্যালয় জনতা ভবনে ওই সংবাদ সম্মেলন করেন। সংবাদ সম্মেলনে চেয়ারম্যান শাহিন হাওলাদার বলেন, আজ (মঙ্গলবার) সকাল ১১টার দিকে  বিশেষ কাজে উপজেলা পরিষদে আসি। এসময় উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কার্যালয়ের সামনে দশপাড়া ইউপি চেয়ারম্যান এ.এন.এম জাহাঙ্গীর হোসেন আমাকে গুন্ডা বলে মন্তব্য করেন।
আমি প্রতিবাদ করলে তাঁর সাথে থাকা ৬/৭জন অস্ত্রধারী সন্ত্রাসী আমার উপর হামলা চালায়। এসময় তাঁর পালিত সন্ত্রাসী মো. রাসেল প্যাদা (৩৫) আমাকে হত্যার উদ্দেশ্যে সুইচ গিয়ার চাকু দিয়ে পাঁজরে আঘাত করে। জ্যাকেট গায়ে থাকায় আমি প্রাণে বেচে যাই। এছাড়াও  জাহাঙ্গীর চেয়ারম্যানের সাথে থাকা  সন্ত্রাসী  মো. মনির হোসেন (৩৮) প্রকাশ্য অবৈধ অস্ত্র প্রদর্শন করেন।
তিনি আরও বলেন,  এঘটনার পরে সন্ত্রাসী জাহাঙ্গীর ও তাঁর বাহিনীরা পৌর শহরে প্রকাশ্য মহড়া দিয়েছে। আমাকে হত্যার হুমকি দিচ্ছে। আমি নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছি। প্রশাসনের কাছে আমার জীবনের  নিরাপত্তা দাবি করছি।  এবিষয়ে দাশপাড়া ইউপি চেয়ারম্যান এ.এন.এম জাহাঙ্গীর হোসেন বলেন, শাহিন চেয়ারম্যান আমাকে লাঞ্ছিত করেছেন। তাঁ দোষ ঢাকার জন্য মিথ্যাচার করছেন এবং ইউএনও মহদায় সিসি ক্যামেরা আপনারা দেখলে আরো ভালো  হবে।
এবিষয়ে বাউফল থানা পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) মো. মিজানুর রহমান বলেন, ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছি। পরিস্থিতি শান্ত রয়েছে। এখনো কোন লিখিত অভিযোগ পাইনি। লিখিত অভিযোগ পেলে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।
এবিষয়ে বাউফল উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) আল আমিন জানান,  অফিসের বারান্দায়  দুই চেয়ারম্যানের বাকবিতণ্ডার ঘটনা ঘটে।   তবে অস্ত্র প্রদর্শনের বিষয়ে তাঁর কিছু জানা নাই।
  • ফেইসবুক শেয়ার করুন