ই-পেপার

শায়েস্তাবাদে নির্বাচন চলাকালে মেম্বার প্রার্থীর সমর্থকের ঘরে আগুন

নিজস্ব প্রতিবেদক | আপডেট: November 11, 2021

সদর উপজেলার শায়েস্তাবাদ ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচন চলাকালে মেম্বার প্রার্থীর সমর্থকের বসতবাড়ি পুড়িয়ে দেয়ার অভিযোগ উঠেছে। বৃহস্পতিবার দ্বিতীয় ধাপের ইউপি নির্বাচনের ভোট গ্রহণ চলাকালে সকাল ১০টার দিকে শায়েস্তাবাদ ইউনিয়নের হায়াতসার এলাকায় এই ঘটনা ঘটে।

ক্ষতিগ্রস্ত ইউনিয়নের ৮ নম্বর ওয়ার্ডের মেম্বর প্রার্থী ফরিদ খানের সমর্থক আল আমিনের অভিযোগ নির্বাচন নিয়ে বিরোধের জের ধরে প্রতিপক্ষ মেম্বার প্রার্থী আমিন বিশ্বাসের সমর্থকরা তার বসতবাড়ি পুড়িয়ে দিয়েছে।

তবে পুলিশ বলছে ভিন্ন কথা। তাদের দাবি এটি নির্বাচন বা রাজনৈতিক কোন বিরোধ নয়। জমি সংক্রান্ত পূর্ব বিরোধের জেরে বসতঘর পুড়িয়ে দেয়া হয়েছে বলে জানান মহানগরীর কাউনিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আজিমুল করিম।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, ‘বৃহস্পতিবার শায়েস্তাবাদ ইউনিয়ন পরিষদে ভোট গ্রহণ চলছিল। হঠাৎ করেই সকাল ১০টার দিকে ইউনিয়নের ৮ নম্বর ওয়ার্ডস্থ হায়াতসার এলাকার আল আমিনের বাড়িতে ধাউ ধাউ করে আগুন জ্বলতে দেখা যায়।

স্থানীয়দের সহায়তায় আগুন নেভানোর চেষ্টায় ব্যর্থ হয়ে ফায়ার সার্ভিসকে খবর দেয়া হয়। ফায়ার সার্ভিস ঘটনাস্থলে পৌঁছানোর আগেই কয়েক লাখ টাকার মালামালসহ বসতঘর পুড়ে ছাই হয়ে যায়।

ক্ষতিগ্রস্ত আল আমিন অভিযোগ করে বলেন, ‘আমি এবং আমার পরিবারের সদস্যরা ৮ নম্বর ওয়ার্ডে মোরগ প্রতীক নিয়ে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করা মেম্বার প্রার্থী ফরিদ খানের সমর্থক। এজন্য নির্বাচনের শুরু থেকেই প্রতিদ্বন্দ্বি প্রার্থী তালা প্রতীকের আমিন বিশ্বাসের সমর্থকরা আমাদের নানাভাবে হুমকি দিয়ে আসছিলেন। এর ধারাবাহিকতায় তারাই নির্বাচন চলাকালে আমার বাড়ি আগুনে পুড়িয়ে দিয়েছে।

এ বিষয়ে মেম্বার প্রার্থী আমিন বিশ্বাসের বক্তব্য না পেলেও বরিশাল মেট্রোপলিটন পুলিশের কাউনিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আজিমুল করিম বলেন, ‘খবর পেয়ে আমিসহ পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। প্রাথমিক তদন্তে যতটুকু জানা গেছে নির্বাচন বা রাজনৈতিক কোন বিরোধ নিয়ে এই অগ্নিসংযোগের ঘটনা ঘটেনি। এটি জমি সংক্রান্ত পূর্ব শত্রুতার জের ধরে ঘটেছে। তার পরেও এই ঘটনায় লিখিত অভিযোগ পেলে তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

  • ফেইসবুক শেয়ার করুন