ই-পেপার

মোহাম্মাদের ঠিকানা ‍এখন ছোট মনি নিবাস

নিজস্ব প্রতিবেদক | আপডেট: August 31, 2022

মানসিক প্রতিবন্ধি’র সদ্যজাত পূত্র সন্তান মোহাম্মাদকে বরিশালের আগৈলঝাড়ার গৌলাস্থ ছোট মনি নিবাসে প্রেরণ করা হয়েছে। বুধবার বিকেলে বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল সমাজসেবা কার্যালয়ের সহযোগীতায় এ্যাম্বুলেন্স যোগে নবজাতকে ছোট মনি নিবাসে পাঠানো হয়েছে।

এদিকে, হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অজ্ঞাত নামা মানুষিক প্রতিবন্ধি সুস্থ্য রয়েছে বলে নিশ্চিত করেছেন গাইনী বিভাগের বিভাগীয় প্রধান সহযোগী অধ্যাপক ডাঃ খুরশিদ জাহান।

শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের গাইনী বিভাগের ইনচার্জ সিনিয়র স্টাফ নার্স মৌসুমী আক্তার জানান, গত ২৯ আগষ্ট বিকালে বরিশালের বিমানবন্দর থানাধীন মাধবপাশা গ্রামের ইছাহাক হাওলাদারের স্ত্রী মিনারা বেগম অজ্ঞাত নামা ৩০ বছর বয়সী মানসিক প্রতিবন্ধি অসুস্থ্য প্রসুতিকে হাসপাতালে ভর্তি করান।

ওই দিন রাতেই জরুরী ভিত্তিতে চিকিৎসকরা ওই প্রসুতির সিজার করলে সে একটি পূত্র সন্তান প্রসব করেন। অজ্ঞাতনামা মানুসিক প্রতিবন্ধিকে ভর্তি করার পর তার দায়ভার নিতে কাউকে পাওয়া না গেলে ইনচার্জ সিনিয়র স্টাফ নার্স মৌসুমী আক্তার নিজেই সদ্যজাত পূত্র সন্তানটি তার কাছে রেখে দেন।

সন্তানটি সুস্থ্য ও ফুটফুটে সুন্দর হওয়ায় অনেকেই তার কাছ থেকে নিচে চেয়েছেন। অতঃপর ইনচার্জ সিনিয়র স্টাফ নার্স মৌসুমী আক্তার আজ বুধবার সদ্যজাত পূত্র সন্তানটিকে শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল সমাজসেবা কার্যালয়ের অফিসার দিলরুবা রইচি’র কাছে হস্তান্তর করেন।

সমাজসেবা অফিসার দিলরুবা রইচি জানান, সন্তানটিকে তার কাছে দেয়ার পর তিনি ওই সন্তানের নাম রাখেন ‘মোহাম্মাদ’। তিনি তৎক্ষনিক বরিশালের আগৈলঝাড়ার গৌলাস্থ ছোট মনি নিবাসে এ্যাম্বুলেন্সের মাধ্যমে প্রেরণ করেন। এর আগে হাসপাতাল সমাজসেবা কার্যলয়ের পক্ষ থেকে সন্তানটির জন্য দুধ, নতুন জামা, তোয়ালে, ফিটার, ফ্লাক্স, টিস্যু, গামলা ও ওয়ালক্লর্থ উপহার প্রদান করেন। বিকালে অনুষ্ঠানিক ভাবে ছোট মনি নিবার্সের স্টাফ সাহিদা খানমের নিকট সন্তানটিকে হস্তান্তর করা হয়।

এ সময় সেখানে উপস্থিত ছিলেন হাসপাতালের ভারপ্রাপ্ত উপ-পরিচালক ডাঃ নজমুল আহসান, শিশু বিভাগের রেজিস্ট্রার ডাঃ ফয়সাল আহম্মেদ, হাসপাতাল সমাজসেবা কার্যালয়ের অফিসার দিলরুবা রইচি ও মোঃ হুমায়ুন কবির, সিনিয়র স্টাফ নার্স মৌসুমী আক্তার প্রমুখ।

  • ফেইসবুক শেয়ার করুন