ই-পেপার

মেহেন্দিগঞ্জে স্কুল চলাকালে বজ্রপাতে ১০ শিক্ষার্থী আহত

নিজস্ব প্রতিবেদক | আপডেট: September 5, 2022

বরিশালের মেহেন্দিগঞ্জ উপজেলায় বজ্রপাতে এক স্কুলের ১০ শিক্ষার্থী আহত এবং অসুস্থ হয়ে পড়ে। সোমবার বেলা ১২টার দিকে এ ঘটনা ঘটে বলে জানিয়েছেন দড়িচর খাজুরিয়া মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের সহকারী প্রধান শিক্ষক মো. আব্দুল মালেক।

তিনি জানান, আহতদের ৯ জনকে প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়া হয়েছে। অভিভাবকরা এসে তাদের বাসায় নিয়ে গেছে। গুরুতর অসুস্থ মো. রবীনকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। রবীন বিদ্যালয়ের সপ্তম শ্রেনীর ছাত্র। সে দড়িরচর খাজুরিয়া গ্রামের মো. এরশাদের ছেলে।

এছাড়াও বজ্রপাতের শব্দে অসুস্থ হওয়া শিক্ষার্থীরা হলেন- সাবিকুন নাহার, রুমান, নিহাদ, সিয়াম, নিপা, রবিন, তামিম, রাব্বি।
সহকারী প্রধান শিক্ষক জানান, স্কুল শুরুর পর থেকে প্রচন্ড বৃষ্টি ও বজ্রপাত শুরু হয়। বেলা ১২ টার দিকে বিদ্যালয়ের আশে-পাশে কোথাও বজ্রপাত হয়।

তার জীবনে এত বিকট শব্দ ও আলোর ঝলকানি নিয়ে বজ্রপাত হয়নি বলে মন্তব্য করেন তিনি। বিকট শব্দ ও আলোর ঝলকানিতে সাথে সাথে ৭-৮ জন শিক্ষার্থীর খিচুনি শুরু হয়ে অজ্ঞান হয়ে পড়ে।

এছাড়াও দুই শিক্ষার্থীর হাত পুড়ে যাওয়ার মতো চিহৃ দেখা গেছে। শিক্ষার্থীদের প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়ার পর তারা স্বাভাবিক হয়েছে। কিন্তু রবীন সুস্থ না হওয়ায় তাকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

মেহেন্দিগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আবাসিক অফিসার আব্দুল্লাহ আল মারুফ বলেন, বিকট শব্দে ভয় পেয়ে শিশু শিক্ষার্থীদের খিচুনি হয়। এর মধ্যে রবীনের ভয় ও আতংক না কাটায় তার খিচুনি বেশি হয়। তবে তাকে চিকিৎসা দেয়ার পর সে সুস্থ রয়েছে।

প্রধান শিক্ষক দীপক কুমার রায় জানান, বেলা সাড়ে ১২টার দিকে ক্লাস চলাকালে বৃষ্টিপাত শুরু হয়। আকস্মিক বজ্রপাত হয়। বিদ্যালয়ের টিনশেড ভবনের সপ্তম শ্রেণিতে পড়ুয়া শিক্ষার্থীদের মধ্যে ১০ জন আহত হয়। অন্য সবাই কমবেশি ভয় পেয়ে আতংকিত হয়ে পড়েছিলো।

মেহেন্দিগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্য (ওসি) শফিকুল ইসলাম জানান, খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশের একটি টিম পাঠানো হয়েছিল। কিন্তু কারো অবস্থা গুরুতর নয় বলে চিকিৎসক জানিয়েছে।

  • ফেইসবুক শেয়ার করুন