ই-পেপার

বাবুগঞ্জে এসএসসি পরীক্ষার্থীর ঝুলন্ত মৃতদেহ উদ্ধার

নিজস্ব প্রতিবেদক | আপডেট: November 21, 2021

বরিশালের বাবুগঞ্জে মুন্নি আক্তার (১৫) নামে এক এসএসসি পরিক্ষার্থীর ঝুলন্ত মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। নিহত মুন্নি আক্তার ঈশ^র নারায়ন মাধ্যমিক বিদ্যালয় থেকে মানবিক বিভাগে এসএসসি পরীক্ষায় অংশগ্রহন করেন।

সে খলিল হাওলাদার ও লেবানন প্রবাসী মনোয়ারা বেগম দম্পত্তির সন্তান। রোববার (২১নভেম্বর) সকাল সাড়ে ৭ টায় উপজেলার দেহেরগতি ইউনিয়নের ১নং ওয়ার্ডের নানা ইঙ্গুল আলী খান’র বাড়ি থেকে লাশ উদ্ধার করে পুলিশ।

নিহত মুন্নির মামা মামুন বলেন, শনিবার রাতের খাবার খেয়ে সাড়ে ১০ টার দিকে মুন্নি নিজের রুমে ঘুমাতে যায়। সকাল সাড়ে ৫টায় বাবা (নানা ইঙ্গুল আলী খান) নামাজ আদায় করতে উঠে মুন্নিকে বিছানায় দেখতে না পেয়ে বাইরে খোঁজ করেন। কিছুক্ষন পর ঘর থেকে একশত গজ দূরে একটি আম গাছের ডালের সাথে মুন্নিকে ওড়না পেঁচিয়ে ঝুলতে দেখে ডাকচিৎকার করেন তিনি।

এসময় বাড়ির সবাই ছুটে এসে মুন্নিকে গাছের ডাল থেকে উদ্ধার করে নিচে নামানো হয়। পরে পুলিশ এসে ময়না তদন্তের জন্য মৃতদেহটি উদ্ধার করে বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে প্রেরণ করেন।

পুুলিশ ও নিহতের পরিবার সূত্রে জানাযায়, মুন্নি আক্তার (১৫) মাধবপাশা চন্দ্রদীপ হাইস্কুল এন্ড কলেজ কেন্দ্রের একজন এসএসসি পরীক্ষার্থী। সে প্রথম পরীক্ষায় ৩০ মিনিট দেরিতে কেন্দ্রে প্রবেশ করে। ফলে তার পরীক্ষা খারাপ হয়। ধারনা করা হচ্ছে প্রথম পরীক্ষা খারাপ হওয়ায় হতাশায় ভূগছিলো সে। হয়তো সেই হতাশা থেকেই আত্মহননের পথ বেছে নিয়েছে ওই এসএসসি পরীক্ষার্থী।

বাবুগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মাহবুবুর রহমান বলেন, প্রাথমিকভাবে পরিবারের সাথে কথা বলে ধারনা করা হচ্ছে প্রথম পরীক্ষা খারাপ হওয়ায় সে গলায় ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যা করেছে। তবে এর বাইরে কোন ঘটনা আছে কিনা তা ময়না তদন্তের রিপোর্ট হাতে পেলে নিশ্চিত হওয়া যাবে।

উল্লেখ্য, ৩ বছর বয়সে বাবার সাথে মায়ের ডিভোর্স হয়ে গেলে মুন্নি আক্তার বাবুগঞ্জ উপজেলার দেহেরগতি ইউনিয়নের ১নং ওয়ার্ডে নানা বাড়িতে থেকে বড় হয়। সেখানে থেকেই মুন্নি আক্তার এসএসসি পরীক্ষায় অংশগ্রহন করেন।

  • ফেইসবুক শেয়ার করুন