ই-পেপার

বদলে গেছে আমতলীর চাওড়ার দৃশ্যপট

নিজস্ব প্রতিবেদক | আপডেট: January 12, 2022

এক সময় ছিল আবাদি জমি। খাল-বিল আর নদীবেষ্টিত অজোপাড়াগাও গ্রাম। সেই জমি এখন সোনার চেয়ে দামি। বলছি আমতলী পৌর শহর থেকে ২ কিলোমিটর দুরে চাওড়া ইউনিয়নের কালী বাড়ী গ্রাম। এখানে এক খন্ড জমি যেন এখন সোনার হরিনের মত।

মাত্র কয়েকবছর আগের এই অচেনা জায়গাটি এখন রূপ নিচ্ছে শহরের মত। নির্মিত হচ্ছে শেখহাসিনা সরকারি টেকনিক্যাল স্কুল এন্ড কলেজ। তার পাশ দিয়েই যাবে পায়রা বন্দর পর্যন্ত রেললাইন আর শেখ হাসিনা সরকারি স্কুল এন্ড কলেজের পাশেই হবে রেল জংশন।

এখানে এখন চলছে বিশাল এক কর্মযজ্ঞ নজরকাড়া মনোরমদৃশ্য ৬ তলা বিশিষ্ট শেখ হাসিনা সরকারি টেকনিকাল স্কুল এন্ড কলেজ। বদলে গেছে স্থানীয় মানুষের জীবনযাত্রা। নুুন উপশহরের হাতছানি নিয়ে আমতলী পৌরশহরের পাশেই অন্ধকারে থাকা গ্রামকে আলোকিত করছে সরকারি শেখ হাসিনা টেকনিকাল স্কুল এন্ড কলেজ।

চাওড়া ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান উপজেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদ মো. আখতারুজ্জামান খান বাদল জানান, অত্যাধুনিক সুযোগ-সুবিধা নিয়ে নির্মিত হয়েছে শেখ হাসিনা সরকারি স্কুল এন্ড কলেজ।

চাওড়া আমার জন্মভূমি চাওড়া ইউনিয়নে শেখ হাসিনা সরকারি স্কুল এন্ড কলেজ নির্মানে আমি ব্যক্তিগতভাবে অনেক আনন্দিু। আগামী ৫ বছরের মধ্যে এখানে আমতলীর উপশহরে পরিনু হবে। কৃষক অসহায় গরীব পরিবারগুলোও ব্যবসা-বাণিজ্য করে নিজেদের ভাগ্য উন্নয়ন ঘটাতে পারবে।

বদলে যাবে মানুষের জীবনযাত্রা এ সম্পর্কে আমতলী উপজেলা আওয়ামীলীগের সহসভাপতি সদর ইউপি চেয়ারম্যান মো. মোতাহার উদ্দিন মৃধা বলেন পাল্টে যাবে স্থনীয়দের জীবনযাত্রার মান। সবচেয়ে আনন্দের বিষয় হলো এই এলাকার অসহায় দারিদ্র পরিবারের সন্তানরা বাড়ীতে থেকে পড়াশুনা করে মানুষের সেবার করার সুযোগ পাবে।

উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক পৌর মেয়র মো. মতিয়ার রহমান বলেন, শেখ হাসিনা সরকারি স্কুল এন্ড কলেজ স্থাপিু হওয়ায় অত্র এলাকার গরীব অসহায় শিক্ষার্থীরা কম খরচে বাড়ীতে বসে পড়া লেখা করে পরিবার ও সাধারণ মানুষের পাশে দাড়াতে পারবে। বর্তমান সরকার জনবান্ধব সরকার এ সরকার সাধারন মানুষের জন্য সবসময় কাজ করে যাচ্ছে।

  • ফেইসবুক শেয়ার করুন