ই-পেপার

দ্বৈত নাগরিক লুসির পাশে আওয়ামীলীগ নেতারা

নিজস্ব প্রতিবেদক | আপডেট: November 23, 2021

মহান স্বাধীনতা যুদ্ধে অসামান্য অবদান রাখা অসুস্থ লুসি হেলেন ফ্রান্সিস হল্টের খোঁজ খবর নিয়েছেন আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দ। মঙ্গলবার সকাল নয়টায় বরিশাল নগরীর বগুড়ারোডস্থ অক্সফোর্ড মিশনের সেন্ট এ্যানস্ হসপিটালে তাকে দেখতে যান কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক অ্যাডভোকেট মোঃ আফজাল হোসেন।

এসময় তাঁর সাথে উপস্থিত ছিলেন- বরিশাল জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সাবেক এমপি অ্যাডভোকেট তালুকদার মোঃ ইউনুস, মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি অ্যাডভোকেট একেএম জাহাঙ্গীর, জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য অ্যাডভোকেট ফয়জুল হক ফয়েজ সহ অন্যান্য নেতৃবৃন্দ।

এসময় তারা লুসি হল্ট এর শারীরিক এবং চিকিৎসা সংক্রান্ত বিষয়ে খোঁজ খবর নেন। পাশাপাশি যে কোন প্রয়োজনে তাকে সহায়তার প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন নেতৃবৃন্দ।

লুসি হেলেন ফ্রান্সিস হল্টের বয়স আগামী ১৬ ডিসেম্বর ৯২ বছর পূরণ হবে। তিনি বাঙালিদের মতো শাড়ি পরেন, বাঙালিদের সেবা করে যাচ্ছেন। তিনি স্বদেশ স্বজনদের ভুলে বাংলাদেশের মাটি ও মানুষের মায়ায় এখানেই ৬০ বছর ধরে রয়েছেন। তার অন্তিম ইচ্ছা, চিরকালের মতো মিশে যেতে চান বাংলার প্রকৃতিতে। তার প্রতি সম্মান জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ২০১৮ সালের ৩১ মার্চ গণভবনে ডেকে নিয়ে তার হাতে তুলে দেন এ দেশের নাগরিকত্ব।

সিস্টার লুসির জন্ম ১৯৩০ সালের ১৬ ডিসেম্বর যুক্তরাজ্যের সেন্ট হ্যালেন্সে। বাবা জন হল্ট ও মা ফ্রান্সিস হল্ট। দুই বোনের মধ্যে ছোট লুসি। তার বড় বোন রুৎ অ্যান রেভা ফেলটন স্বামী ও তিন ছেলে নিয়ে ব্রিটেনেই বসবাস করেন। লুসি ১৯৪৮ সালে উচ্চমাধ্যমিক (দ্বাদশ) পাস করেন।

তিনি ১৯৬০ সালে প্রথম বাংলাদেশে আসেন। যোগ দেন বরিশাল অক্সফোর্ড মিশনে। এখানে প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিশুদের পড়াতেন। এরপর আর দেশে ফিরে যাননি। ৫৭ বছর ধরে বরিশাল ছাড়াও কাজ করেছেন যশোর, খুলনা, নওগাঁ, ঢাকা ও গোপালগঞ্জে।

  • ফেইসবুক শেয়ার করুন