ই-পেপার

ঢাকাকে বিচ্ছিন্ন করার হুঁশিয়ারি বিএনপি নেতাদের

বিএসএল নিউজ ডেস্ক: | আপডেট: November 22, 2021

বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে বিদেশে চিকিৎসার অনুমতি না দিলে ঢাকাকে সারা দেশ থেকে বিচ্ছিন্ন করে দেওয়া হবে বলে হুঁশিয়ারি দিয়েছেন দলের নেতারা।

সোমবার (২২ নভেম্বর) জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে প্রতিবাদ সমাবেশে অংশ নিয়ে তিনি এ কথা বলেন। এ সময় বুধবার জেলায় জেলায় প্রতিবাদ কর্মসূচি ঘোষণা করা হয়।

আসছে একের পর এক মিছিল। স্লোগানে স্লোগানে মুখর হয়ে উঠে এলাকা।

হাসপাতালে চিকিৎসাধীন বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে উন্নত চিকিৎসার জন্য বিদেশে পাঠানোর দাবিতে সোমবার সকাল থেকেই জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে জড়ো হতে শুরু করেন দলের নেতাকর্মীরা। বেলা গড়ানোর সঙ্গে সঙ্গে সমাবেশ স্থলে তিল ধারণের ঠাঁই থাকে না। পল্টন থেকে প্রেসক্লাবগামী সড়ক ছাড়িয়ে নেতাকর্মীরা অবস্থান নেন হাইকোর্ট মোড় পর্যন্ত।

সমাবেশে দলের মহাসচিব বলেন, খালেদা জিয়াকে চিকিৎসার জন্য বিদেশে পাঠানোর অনুমতি না দিলে, লাগাতার আন্দোলনে নামবে বিএনপি। প্রধানমন্ত্রীর নির্বাহী আদেশেই খালেদা জিয়াকে বিদেশ চিকিৎসার সুযোগ দেওয়া সম্ভব বলেও দাবি করেন তিনি।
মির্জা ফখরুল বলেন, আমাদের সামনে একটাই পথ আন্দোলন-আন্দোলন আর আন্দোলন। আন্দোলনকে আরও তীব্রতর করে সামনে দিকে বেগবান করতে হবে। আগামী ২৪ নভেম্বর দেশের সব জেলায় প্রতিবাদ কর্মসূচি ও জেলাপ্রশাসকের কার্যালয়ে স্মারকলিপি দেওয়া হবে বলেও জানান তিনি।

এসময় বিএনপি নেতারা অভিযোগ করেন, ৪০১ ধারার অজুহাত দিয়ে সরকার খালেদা জিয়ার ওপর রাজনৈতিক প্রতিহিংসা চরিতার্থ করছে। দাবি না মানলে রাজধানী ঢাকাকে সারাদেশ থেকে বিচ্ছিন্ন করার হুমকিও দেন তারা।

বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য নজরুল ইসলাম বলেন, তিনি অসুস্থ অবস্থায় আছেন তার চিকিৎসকরা বলছেন, দেশে তার চিকিৎসা সম্ভব নয় আর আইনজীবীরা বলেছেন বিদেশে তার যাওয়ার বিষয়ে কোনো বাধা নেই।

বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান আমান উল্লাহ আল আমান বলেন, আন্দোলন-কর্মসূচি চলতেই থাকবে, প্রয়োজনে বাংলাদেশ ঢাকা থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে যাবে।

বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায় বলেন, আমরা তার মুক্তি চাই, নিঃশর্ত মুক্তি চাই। তার চিকিৎসা চাই।

খালেদা জিয়া ইস্যুতে আগামী ২৪ নভেম্বর দেশের সব জেলায় প্রতিবাদ কর্মসূচি ও জেলাপ্রশাসকের কার্যালয়ে স্মারকলিপি দেওয়ার ঘোষণা দেন বিএনপি মহাসচিব।

  • ফেইসবুক শেয়ার করুন