ই-পেপার

আগামী তিথিতে কুয়াকাটায় ঐতিহ্যবাহী রাস লীলা উৎসব

এ.এম. মিজানুর রহমান বুলেট, কলাপাড়া | আপডেট: November 9, 2021

প্রতি বছরের ন্যায় এ বছরও আগামী পূর্নিমা তিথিতে সনাতন ধর্মাবলম্বীদের ঐতিহ্যবাহী রাস লীলা উৎসব ও গঙ্গাস্নান অনুষ্ঠিত হবে। এ লক্ষে কলাপাড়া ও কুয়াকাটায় চলছে ব্যাপক প্রস্তুতি। আন্ধরমানিক নদী লাগোয় পৌর শহরের শ্রী শ্রী মদন মোহন সেবাশ্রম আঙ্গিনা সাজানো হচ্ছে নতুন সাজে। এ উৎসব কেবল হিন্দু ধর্মাবলম্বীদের একক অনুষ্ঠানে সীমাবন্ধ থাকে না। এটি সার্বজনীন উৎসবে পরিনত হয়।

সনাতন ধর্মাবলম্বীদের মতে, দ্বাপর যুগে মানুষের দুঃখ, দুর্দশা, হিংসা, হানাহানী, দেখে এবং দুষ্টের দমন ও সৃষ্টের পালনের জন্য স্বয়ং ভগবান শ্রী কৃষ্ণ নাম ধারন করে পৃথিবীতে অবর্তীন হয়। ওই যুগে ভগবান শ্রী কৃষ্ণ নিস্কাম প্রেমের নিদর্শন রেখে যান এবং তিনি যে সর্বভূতে বিরাজ করেন তারই স্বাক্ষী রেখেছেন পূর্নিমা রাতে এ রাস লীলার মাধ্যমে। সেই লীলা অনুসরনে কুয়াকাটায় গঙ্গাস্নান শেষে কলাপাড়ার শ্রী শ্রী মদন মোহন সেবাশ্রম আঙ্গিনায় রাস মেলা চলে আসছে।

পঞ্জিকা মতে ১৮ নভেম্বর বৃহস্পতিবার রাত ১২ টা এক মিনিটে পূর্নিমা শুরু হবে। আর পূর্নিমা থাকবে পরদিন শুক্রবার দুপুর ১ টা ৪৭ মিনিট পর্যন্ত।এই তিথিতে পূর্ব আকাশে সূর্য ওঠার সাথে সাথে বঙ্গোসাগরের নীল জলে গঙ্গাস্নান শেষ করবেন পুণ্যার্থীরা। এর পর পটুয়খালীর কলাপাড়া পৌর শহরের অবস্থিত শ্রী শ্রী মদন মোহন সেবাশ্রম আঙ্গিনায় ১৭ জোরা রাধা কৃষ্ণের যুগল প্রতিমা দর্শন করবে তারা।

স্থানীয়রা জানান, পুর্নিমা তিথিতে কুয়াকাটার সৈকতে স্নানের আগ মূহুর্তে সনাতন ধর্মাবলম্বী অনেক মানতকারিরা মাথার চুল ন্যাড়া করা সহ প্রাশ্চিত্ত ও পিন্ডদান করেন। পূন্যের আশায় মোমবাতি ও আগরবাতি জ্বালিয়ে বেল পাতা, ফুল, ধান, দূর্বা, হরিতকী, ডাব, কলা, তেল, সিঁদুর ইত্যাদি সমুদ্রের জলে অর্পন করা হয়। তবে উলুর ধ্বনি, গীতা পাঠ ও ঢাংকার বাদ্যে পুরো সৈকত জুড়ে মুখরিত থাকে।

কলাপাড়ায় রাস মেলা উদযাপন কমিটির সভাপতি হীরা হাওলাদার স্বাপন বলেন, পাঁচ দিন ব্যাপী রাস মেলা উপলক্ষে ব্যাপক প্রস্তিতি গ্রহন করা হয়েছে। ইতোমধ্যে দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে দেকানীরা মেলায় দোকান বরাদ্দ নেয়ার জন্য যোগাযোগ করছে। ধুয়ে মুছে নতুন করে সাজানে হচ্ছে মন্দির প্রঙ্গন। এছাড়া নতুন করে ১৭ জোরা রাধা কৃষ্ণের যুগল প্রতিমাও তৈরি করা হচ্ছে। আশা করি ঠিক সময় মত রাস মেলা শুরু হবে।

কলাপাড়ার শ্রী শ্রী মদন মোহন সেবাশ্রম কমিটির সাধারন সম্পাদক এ্যাড. নাথুরাম ভৌমিক বলেন, ১৮ নভেম্বর বৃহস্পতিবার রাতে অধিবাসের মধ্যদিয়ে ঐতিহ্যবাহী রাস লীলা উৎসব ও মেলার অনুষ্ঠিানিকতা শুরু হবে। এ অনুষ্ঠান চলবে পাঁচদিন ব্যাপী।

  • ফেইসবুক শেয়ার করুন